সঠিক নিয়মে ইউটিউব চ্যানেল খোলার নিয়ম

আজকের আর্টিকেলে আমরা জানবো সঠিক নিয়মে ইউটিউব চ্যানেল খোলার নিয়ম। তবে তার আগে আমাদের জানা উচিৎ কোন কোন কারণে আমরা ইউটিউব চ্যানেল খুলবো।

সঠিক নিয়মে ইউটিউব চ্যানেল খোলার নিয়ম
সঠিক নিয়মে ইউটিউব চ্যানেল খোলার নিয়ম

ইউটিউব চ্যানেল কেন খোলা উচিৎ

ইউটিউব চ্যানেল খোলার অনেক কারণ থাকতে পারে। আপনার আগ্রহ, দক্ষতা এবং লক্ষ্যের উপর নির্ভর করে, ইউটিউব চ্যানেল আপনার জন্য একটি মূল্যবান হাতিয়ার হতে পারে।

ইউটিউব চ্যানেল খুলার কিছু কারণ:

জ্ঞান শেয়ার করা:

আপনার জ্ঞান, অভিজ্ঞতা এবং দক্ষতা অন্যদের সাথে শেয়ার করার জন্য ইউটিউব একটি চমৎকার মাধ্যম।

ব্যক্তিগত ব্র্যান্ড তৈরি:

আপনি যদি একজন উদ্যোক্তা, শিল্পী, বা অন্য কোন পেশাজীবী হন, ইউটিউব আপনার ব্যক্তিগত ব্র্যান্ড তৈরি এবং আপনার খ্যাতি বৃদ্ধি করতে সাহায্য করতে পারে।

আয়ের উৎস তৈরি:

বিজ্ঞাপন, স্পন্সরশিপ, এবং অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এর মাধ্যমে ইউটিউব চ্যানেল থেকে আয় করা সম্ভব।

অন্যদের সাথে সংযোগ স্থাপন:

আপনার ভিডিওর মাধ্যমে আপনি একই রুচি সম্পন্ন মানুষদের সাথে সংযোগ স্থাপন করতে পারেন।

নিজেকে অভিজ্ঞ করা:

ভিডিও তৈরি করা একটি মজার এবং সৃজনশীল অভিজ্ঞতা হতে পারে।

ইউটিউব চ্যানেল খোলার আগে কিছু বিষয় মনে রাখা:
  • আপনার লক্ষ্য নির্ধারণ করুন: আপনি কেন ইউটিউব চ্যানেল খুলতে চান? আপনার লক্ষ্য কি?আপনার niche নির্বাচন করুন: আপনি কোন বিষয়ে ভিডিও তৈরি করবেন?
  • উচ্চ-মানের ভিডিও তৈরি করুন: আপনার ভিডিওগুলি আকর্ষণীয় এবং তথ্যপূর্ণ হতে হবে।নিয়মিত ভিডিও আপলোড করুন: আপনার দর্শকদের নিয়মিতভাবে নতুন ভিডিও সরবরাহ করুন।
  • আপনার দর্শকদের সাথে যোগাযোগ করুন: আপনার ভিডিওতে মন্তব্যের উত্তর দিন এবং আপনার দর্শকদের সাথে সামাজিক মাধ্যমে যোগাযোগ করুন।

ইউটিউব চ্যানেল খোলার নিয়ম

প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র:
  • একটি Google অ্যাকাউন্ট: আপনার ইতিমধ্যে Google অ্যাকাউন্ট না থাকলে, এখানে: https://accounts.google.com/signup/v2/webcreateaccount তৈরি করতে পারেন।
  • ইন্টারনেট সংযোগ: ভিডিও আপলোড এবং সম্পাদনা করার জন্য আপনার একটি স্থিতিশীল ইন্টারনেট সংযোগ প্রয়োজন।
  • ক্যামেরা (ঐচ্ছিক): আপনি ভিডিও তৈরি করতে চাইলে, আপনার একটি ক্যামেরা (স্মার্টফোন ক্যামেরা ব্যবহার করা যেতে পারে) প্রয়োজন হবে।
  • ভিডিও সম্পাদনা সফ্টওয়্যার (ঐচ্ছিক): আপনি আপনার ভিডিও সম্পাদনা করতে চাইলে, আপনার ভিডিও সম্পাদনা সফ্টওয়্যার (যেমন: Adobe Premiere Pro, Filmora) প্রয়োজন হবে।

ধাপ ১: Google অ্যাকাউন্ট তৈরি করুন:

আপনার ইতিমধ্যে Google অ্যাকাউন্ট না থাকলে, এখানে: https://accounts.google.com/signup/v2/webcreateaccount যান এবং একটি তৈরি করুন।

ধাপ ২: YouTube-এ যান:

YouTube: https://www.youtube.com ওয়েবসাইটে যান।

ধাপ ৩: আপনার অ্যাকাউন্টে লগ ইন করুন:

উপরের ডানদিকে "Sign In" ক্লিক করুন এবং আপনার Google অ্যাকাউন্টের ইমেইল এবং পাসওয়ার্ড ব্যবহার করে লগ ইন করুন।

ধাপ ৪: আপনার চ্যানেল তৈরি করুন:

  • উপরের ডানদিকে আপনার প্রোফাইল ছবি ক্লিক করুন এবং "Your channel" এ যান।
  • "Create a channel" ক্লিক করুন।
  • আপনার চ্যানেলের নাম এবং বিবরণ লিখুন।
  • "Create channel" ক্লিক করুন।

ধাপ ৬: আপনার চ্যানেল কাস্টমাইজ করুন:

  • আপনার চ্যানেলের জন্য একটি প্রোফাইল ছবি এবং ব্যানার আপলোড করুন।
  • আপনার চ্যানেলের জন্য একটি বিবরণ লিখুন।
  • আপনার চ্যানেলের জন্য লিঙ্ক যোগ করুন।

ধাপ ৬: ভিডিও আপলোড করুন:

  • "Upload" বোতাম ক্লিক করুন।
  • আপনি যে ভিডিও আপলোড করতে চান তা নির্বাচন করুন।
  • ভিডিওর শিরোনাম, বিবরণ এবং ট্যাগ লিখুন।
  • "Publish" ক্লিক করুন।

ইউটিউব থেকে ইনকাম করার উপায়:

১. বিজ্ঞাপন:

আপনার ভিডিওতে Google AdSense বিজ্ঞাপন দেখিয়ে আপনি আয় করতে পারেন। আপনার চ্যানেলের YouTube Partner Program (YPP) -এ অন্তর্ভুক্ত থাকতে হবে। YPP-এর জন্য আপনার চ্যানেলে 1,000 সাবস্ক্রাইবার এবং 4,000 ঘন্টা পাবলিক ওয়াচ টাইম থাকতে হবে।

২. স্পন্সরশিপ:

আপনি বিভিন্ন ব্র্যান্ডের সাথে স্পন্সরশিপ চুক্তি করতে পারেন। স্পন্সরশিপ চুক্তিতে, আপনি আপনার ভিডিওতে ব্র্যান্ডের পণ্য বা পরিষেবা প্রদর্শন করবেন।

৩. অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং:

আপনি আপনার ভিডিওতে অ্যাফিলিয়েট লিঙ্ক ব্যবহার করতে পারেন। যখন কেউ আপনার লিঙ্ক ব্যবহার করে কোন পণ্য কিনবে, তখন আপনি কমিশন পাবেন।

৪. পণ্য বিক্রি:

আপনি আপনার নিজস্ব পণ্য বিক্রি করতে পারেন। আপনার ভিডিওতে আপনার পণ্যের প্রচার করতে পারেন।

৫. ডোনেশন:

আপনার দর্শকদের কাছ থেকে ডোনেশন চাইতে পারেন। আপনি Patreon, PayPal, or GoFundMe এর মতো প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করতে পারেন।

শেষ কথাঃ আশা করি আজকের আর্টিকেল পড়ার পর সঠিক নিয়মে ইউটিউব চ্যানেল খোলার নিয়ম, ইউটিউব চ্যানেল কেন খোলা উচিৎ ও  ইউটিউব থেকে ইনকাম করার উপায় সম্পর্কে জানতে পেরেছেন। 
পরবর্তী পোস্ট পূর্ববর্তী পোস্ট
কোন মন্তব্য নেই
মন্তব্য করুন
comment url