স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা

দাঁতের মাড়িতে ক্যান্সারের লক্ষণ

মুখের ক্যান্সারের একটি ধরণ হল মাড়ির ক্যান্সার। এটি দ্রুত বৃদ্ধি পেতে পারে এবং মারাত্মক হতে পারে। তাই এই রোগের প্রাথমিক লক্ষণ সম্পর্কে সচেতন থাকা গুরুত্বপূর্ণ যাতে আপনি দ্রুত চিকিৎসা নিতে পারেন

দাঁতের মাড়ির ক্যান্সারের লক্ষণ

দাঁতের মাড়ির ক্যান্সারের কিছু সাধারণ লক্ষণ হল:

  • মাড়িতে ঘা বা ফোঁড়া যা দীর্ঘক্ষণ সেরে যায় না (এক সপ্তাহের বেশি)
  • মাড়িতে লাল, সাদা বা লালচে-সাদা দাগ
  • মাড়ি ফুলে যাওয়া
  • মাড়ি থেকে রক্তপাত
  • দাঁত নড়বড় করা বা দাঁত হারানো
  • মুখের ভেতর অস্বস্তি বা ব্যথা
  • চিবানো বা গিলতে সমস্যা
  • কানে ব্যথা
  • ওজন হ্রাস

যদি আপনি এই লক্ষণগুলির মধ্যে কোনটি অনুভব করেন তবে দ্রুত একজন ডেন্টিস্ট বা ডাক্তারের সাথে দেখা করা গুরুত্বপূর্ণ। মনে রাখবেন যে এগুলি কেবলমাত্র দাঁতের মাড়ির ক্যান্সারের সম্ভাব্য লক্ষণ, এবং অন্যান্য চিকিৎসা অবস্থাও একই লক্ষণগুলির কারণ হতে পারে। তবে, শুধুমাত্র একজন চিকিৎসা পেশাদারই সঠিকভাবে নির্ণয় করতে পারেন।

দাঁতের মাড়ির ক্যান্সারের ঝুঁকি কমাতে আপনি কিছু পদক্ষেপ নিতে পারেন:

  • ধূমপান ত্যাগ করুন: ধূমপান দাঁতের মাড়ির ক্যান্সারের ঝুঁকির অন্যতম প্রধান কারণ।
  • তামাক সেবন এড়িয়ে চলুন: তামাকের যেকোনো রূপ, যার মধ্যে রয়েছে গুটকা, পান মসলা এবং খৈনি, দাঁতের মাড়ির ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ায়।
  • নিয়মিত মুখের পরীক্ষা করান: আপনার দাঁত এবং মাড়ি নিয়মিত পরীক্ষা করার জন্য একজন দাঁতের ডাক্তারের সাথে নিয়মিত অ্যাপয়েন্টমেন্ট নির্ধারণ করুন।
  • স্বাস্থ্যকর খাদ্য খান: প্রচুর ফল, শাকসবজি এবং সম্পূর্ণ শস্য সমৃদ্ধ একটি স্বাস্থ্যকর খাদ্য খান।
  • নিয়মিত ব্যায়াম করুন: নিয়মিত ব্যায়াম আপনার সামগ্রিক স্বাস্থ্যের জন্য ভাল এবং এটি ক্যান্সারের ঝুঁকি কমাতে সাহায্য করতে পারে।
আরও পড়ুনঃ  দাতের মাড়িতে ইনফেকশন হলে করণীয় কি?

আপনার যদি কোন প্রশ্ন বা উদ্বেগ থাকে তবে আপনার ডেন্টিস্ট বা ডাক্তারের সাথে কথা বলুন।

২০২৫ সালের রোজা শুরু কত তারিখে?

সহজ ভাষায়

ইসলাম ও বিশ্বতথ্য জানুন সহজ, সাবলীল বাংলায়!

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button

অ্যাডব্লকার ডিটেক্ট হয়েছে!

মনে হচ্ছে আপনি অ্যাড ব্লকার ব্যবহার করছেন। আমাদের সাইট ভিজিট করার জন্য আপনাকে অ্যাড ব্লকার বন্ধ করতে হবে। যদি অ্যাডব্লকার ব্যবহার না করেন, তাহলে পেজটি রিফ্রেশ করুন।