স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা

দাঁতের মাড়ির মাংস বৃদ্ধির কারণ ও চিকিৎসা

বিভিন্ন কারণে দাঁতের মাড়ির মাংস বৃদ্ধি পেতে পারে। মাড়ির মাংস কেন বাড়ে ও এর চিকিৎসা সমন্ধে আলোচনা করা হয়েছে এই আর্টিকেলে।

দাঁতের মাড়ির মাংস বৃদ্ধির কারণ

  • মাড়ির প্রদাহ (জিঞ্জিভাইটিস): এটি দাঁতের মাড়ির মাংসের সবচেয়ে সাধারণ কারণ। প্লাক জমা হলে এবং দাঁত থেকে সরিয়ে না ফেলা হলে, ব্যাকটেরিয়া জমা হতে পারে এবং মাড়িতে প্রদাহ সৃষ্টি করতে পারে।
  • পেরিওডন্টাইটিস: এটি মাড়ির আরও একটি গুরুতর রোগ যা মাড়ির গভীর টিস্যু এবং হাড়কে ক্ষতিগ্রস্ত করে।
  • হরমোন: গর্ভাবস্থা, মেনোপজ এবং ঋতুচক্রের সময় হরমোনের পরিবর্তনের ফলে মাড়ির মাংস ফুলে যেতে পারে।
  • ওষুধ: কিছু ওষুধ, যেমন স্টেরয়েড এবং কিছু উচ্চ রক্তচাপের ওষুধ, মাড়ির মাংস ফুলে যেতে পারে।
  • ধূমপান: ধূমপান মাড়ির রোগের ঝুঁকি বাড়ায় এবং মাড়ির মাংস ফুলে যেতে পারে।
  • অপুষ্টি: ভিটামিন সি এবং কে এর অভাব মাড়ির স্বাস্থ্যের সাথে সম্পর্কিত হতে পারে।
  • মেকানিক্যাল ট্রমা: খারাপভাবে ফিটিং করা ডেন্টুর বা ব্রেসেসের মতো মেকানিক্যাল ট্রমা মাড়ির মাংস ফুলে যেতে পারে।

মাড়ির মাংস বৃদ্ধির লক্ষণ

  • মাড়ি ফুলে যাওয়া এবং লাল হয়ে যাওয়া
  • মাড়িতে রক্তপাত
  • মাড়ি থেকে পুঁজ বের হওয়া
  • মাড়ি থেকে সরে যাওয়া
  • দাঁত নড়বড়ে
  • মুখে অস্বস্তি

দাঁতের মাড়ির মাংস বৃদ্ধির চিকিৎসা

দাঁতের মাড়ির মাংস বৃদ্ধির চিকিৎসা নির্ভর করে এর কারণের উপর।

  • মাড়ির প্রদাহ: নিয়মিত দাঁত ব্রাশ করা এবং ফ্লস করা, পেশাদার পরিষ্কার এবং অ্যান্টিবায়োটিক মাউথওয়াশ ব্যবহার করা।
  • পেরিওডন্টাইটিস: আরও গভীর পরিষ্কার, অ্যান্টিবায়োটিক এবং সম্ভবত সার্জারি।
  • অন্যান্য কারণ: অন্তর্নিহিত কারণের চিকিৎসা।
আরও পড়ুনঃ  দাঁত ওয়াশ করার খরচ কত টাকা?

মাংস বৃদ্ধির প্রতিরোধ

  • নিয়মিত দাঁত ব্রাশ করা এবং ফ্লস করা: প্রতিদিন দুবার, দুই মিনিট করে দাঁত ব্রাশ করুন এবং প্রতিদিন একবার ফ্লস করুন।
  • পেশাদার পরিষ্কার: প্রতি 6 মাস অন্তর পেশাদার পরিষ্কার করান।
  • স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়া: ভিটামিন সি এবং কে সমৃদ্ধ খাবার খান।
  • ধূমপান ত্যাগ করা: ধূমপান ত্যাগ করুন।
  • নিয়মিত চেকআপ: নিয়মিত ডেন্টাল চেকআপ করান।

মনে রাখবেন:

এই তথ্য শুধুমাত্র তথ্যগত উদ্দেশ্যে। চিকিৎসা সংক্রান্ত পরামর্শের জন্য একজন ডেন্টিস্টের সাথে পরামর্শ করুন।

২০২৫ সালের রোজা শুরু কত তারিখে?

সহজ ভাষায়

ইসলাম ও বিশ্বতথ্য জানুন সহজ, সাবলীল বাংলায়!

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button

অ্যাডব্লকার ডিটেক্ট হয়েছে!

মনে হচ্ছে আপনি অ্যাড ব্লকার ব্যবহার করছেন। আমাদের সাইট ভিজিট করার জন্য আপনাকে অ্যাড ব্লকার বন্ধ করতে হবে। যদি অ্যাডব্লকার ব্যবহার না করেন, তাহলে পেজটি রিফ্রেশ করুন।