বিজ্ঞানসাধারণ জ্ঞান

অদ্ভুত ৬টি স্থান, যেখানে রাত হয়না, দেখা যায় সূর্য

মানুষ সূর্যের আলোতে কাজ করবে। আর সূর্য ডুবে গেলে ঘুমাতে যাবে। আমাদের দেশের জীবনযাত্রার নিয়মটি এমনই। কিন্তু কোন দেশের বাসিন্দারা যদি ২৪ ঘণ্টাই সূর্যের আলোতে থাকে, তবে কি ২৪ ঘণ্টাই কাজ কররে। কোন দেশে যদি রাত না হয়। কখনো সূর্যই না ডুবে!

পৃথিবীর মাঞ্চিত্রে এমন দেশেরও কি অস্তিত্ব আছে?

২৪ ঘন্টাই সূর্য উদীয়মান থাকে। কখনো অস্ত যায় না। এমনকি রাত হয়না। এমন দেশের অস্তিত্ব পৃথিবীর মানচিত্রে রয়েছে তো বটেই, তাও আবার একটি নয়, মোট ৬টি দেশে সূর্য সবসময়ই উদীয়মান থাকে।

কানাডা

বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম দেশ কানাডা। কানাডার নুনাভুত শহর খুব সুন্দর। এই শহরে টানা দুই মাস সূর্য অস্ত যায় না। কথিত রয়েছে, এখানে উত্তর-পশ্চিমের মতো জায়গায় গ্রীষ্মে প্রায় ৫০ দিন সূর্যের আলো থাকে। তাই এখানে কখনও রাত হয় না। ঘড়ির সময় ধরে এখানকার মানুষ কাজ সারে এবং ঘুমাতে যায়।

ফিনল্যান্ড

ফিনল্যান্ডকে হ্রদ ও দ্বীপের দেশ বলা হয়। এই দেশের বেশিরভাগ অংশই গ্রীষ্মকালে মাত্র ৭৩ দিনের জন্য সরাসরি সূর্যকে দেখতে পায়। এই সময়ে সূর্যের আলো প্রায় ৭৩ দিন থাকে। অথচ শীতকালে সূর্য দেখা যায় না।

নরওয়ে

নরওয়েকে বলা হয় মধ্যরাতের সূর্যের দেশ। প্রতিবছর মে মাসের শেষ থেকে জুলাইয়ের শেষ পর্যন্ত প্রায় ৭৬ দিন এখানে সূর্য অস্ত যায় না। প্রায় ২০ ঘণ্টা শক্তিশালী সূর্যালোক থাকে। নরওয়ের স্যালবার্ডে, ১০ এপ্রিল থেকে ২৩ আগস্ট পর্যন্ত একটানা সূর্য উদীয়মান থাকে।

আরও পড়ুনঃ  ভ্যাটিকান সিটির রহস্য: অজানা সত্য যেগুলো আপনি জানেন না!

এখানে  রাত মাত্র ৪০ মিনিট। সূর্য ১২:৪৩ এ অস্ত যায় এবং মাত্র ৪০ মিনিট পরই আবার উদিত হয়। আবার এমন একটি জায়গা রয়েছে, যেখানে ১০০ বছর ধরে সূর্যের আলো পৌঁছায়নি।

আইসল্যান্ড

গ্রেট ব্রিটেনের পরে আইসল্যান্ড ইউরোপের বৃহত্তম দ্বীপ। প্রতিবছর এই দ্বীপে জুন মাসে সূর্য অস্ত যায় না। বরং ২৪ ঘণ্টাই উদীয়মান থাকে। তাই ওই সময় রাত হয় না।

সুইডেন

সুইডেনেও রয়েছে এমন চিত্র। মে মাসের শুরু থেকে আগস্টের শেষ পর্যন্ত এখানে সূর্য রাত ১২ টার দিকে অস্ত যায়। আবার ভোর সাড়ে ৪ টায় উদীত হয়। এখানে সকাল ৬ মাস পর্যন্ত স্থায়ী হয়।

আলাস্কা

আলাস্কাতেও উতকিয়াগভিক শহরেও একই চিত্র। এখানে মে মাসের শেষ থেকে জুলাইয়ের শেষ পর্যন্ত সূর্য উদীয়মান থাকে। শীতকালে অর্থাৎ নভেম্বরের শুরুতে ১ মাস শুধু রাত থাকে।

এই সময়কে বলা হয় পোলার নাইট। প্রায় চার হাজার মানুষের বাস সেখানে। সেখানকার বাসিন্দারা আবহাওয়ার এই বৈচিত্র উপভোগও করেন। বলা যায়, প্রায় উৎসবের ঢঙেই তারা পার করবে ৬৫ দিনের অনন্ত রাত। 

সহজ ভাষায়

ইসলাম ও বিশ্বতথ্য জানুন সহজ, সাবলীল বাংলায়!

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button

অ্যাডব্লকার ডিটেক্ট হয়েছে!

মনে হচ্ছে আপনি অ্যাড ব্লকার ব্যবহার করছেন। আমাদের সাইট ভিজিট করার জন্য আপনাকে অ্যাড ব্লকার বন্ধ করতে হবে। যদি অ্যাডব্লকার ব্যবহার না করেন, তাহলে পেজটি রিফ্রেশ করুন।